Connect with us

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ

শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়নস লীগ, প্রথম দিনেই বার্সা-ডর্টমুন্ড দ্বৈরথ

প্রথম দিনেই মাঠে নামছে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল, হট ফেভারিট বার্সেলোনার মত দল।

প্রকাশিত

তারিখ

শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়নস লীগ, প্রথম দিনেই বার্সা-ডর্টমুন্ড দ্বৈরথ
চ্যাম্পিয়নস লীগের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে মাঠে নামছে ৩২ দল। ছবিঃ দি গোল

আজ রাতেই শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়নস লীগের নতুন মৌসুমের গ্রুপ পর্ব। ইউরোপ সেরা হওয়ার লড়াইয়ে মাঠে নামছে ৩২ টি দল।

প্রথম দিনেই মাঠে নামছে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল, হট ফেভারিট বার্সেলোনার মত দল।
আজ প্রথম দিনে ম্যাচ থাকছে ৮ টি। এ মৌসুমে সিরিআ তে ছন্দে থাকা ইন্টার মিলান মুখোমুখি হচ্ছে স্লাভিয়া প্রাগের। লিয়ন মুখোমুখি হচ্ছে জেনিত সেন্ট পিটার্সবার্গের।

নতুন ম্যানেজারের অধীনে মানিয়ে নেয়া চেলসি নিজেদের গুছিয়ে নিয়েছে। শেষ ম্যাচে উলভসকে নিজেদের ঘরের মাঠে হারিয়ে আত্মবিশ্বাসী চেলসির মুখোমুখি একদম নতুন কোচ নিয়ে মৌসুম শুরু করা ভ্যালেন্সিয়া।এদিকে রেড বুল সালজবুর্গ এর প্রতিপক্ষ বেলজিয়ামের ক্লাব গেঙ্ক।

গত মৌসুমে চমকে দেয়া আয়াক্স মুখোমুখি হবে হবে ফ্রেঞ্চ লীগের ক্লাব লিলের। গত চ্যাম্পিয়নস লীগে খেলা আয়াক্সের অনেক খেলোয়াড়ই এবার অন্য দলে চলে গেলেও নতুন খেলোয়াড় নিয়েই লড়াই করতে চান আয়াক্স কোচ।

পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকার প্রতিপক্ষ জার্মান ক্লাব আরবি লাইপজিগ। তবে দূর্দান্ত একটি ম্যাচ হতে পারে লিভাপুল-নাপোলি ম্যাচটি। এ মৌসুমে নাপোলি আছে দূর্দান্ত ফর্মে। অপরদিকে লিভারপুল গত মৌসুমে যেখানে শেষ করেছিল এ মৌসুম যেনো ঠিক সেখান থেকেই শুরু করেছে তারা।

প্রিমিয়ার লীগে টানা পাঁচ জিতে করেছে রেকর্ড। লিভারপুলের যদি দূর্বল জায়গা থাকে তবে সেটি হচ্ছে তাদের গোলকিপার এলিসনের ইঞ্জুরি।

এ রাতের সম্ভবত সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচ হতে যাচ্ছে বার্সেলোনা-ডর্টমুন্ড ম্যাচ। একদিকে রয়েস-আলকাসার-সাঞ্চো অন্যদিকে মেসি-সুয়ারেজ-গ্রিজম্যান জুটি। সাথে উদীয়মান আনসু ফাতিহ তো আছেই। বার্সার সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে বেশি ভয় প্রতিপক্ষের মাঠে খেলা নিয়ে।

গত দুই মৌসুমেও রোমা এবং লিভারপুলের কাছে অবিশ্বাস জন্ম দিয়ে হেরে বিদায় নিয়েছে বার্সা।বার্সা কোচ ভালভার্দের জন্য অবশ্য কোথাও এওয়ে ম্যাচের ফল সুখকর না। লা লিগাতেও এওয়ে ম্যাচে ওসাসুনার মত দলের বিপক্ষে ধুকতে হয়েছে তাদের।

ইউরোপিয়ান টুর্নামেন্টে শেষ ১২ ম্যাচে মাত্র ৪ টি জয় বার্সার। জার্মান প্রতিপক্ষের সঙ্গে পরিসংখ্যান আরো ভয়াবহ। শেষ সাত ম্যাচে জয় মাত্র দুইটি।

ইউরোপিয়ান কোন টুর্নামেন্টে এর আগে এই দুই দল মুখোমুখি হয়েছে দুইবার। ১৯৯৮ সালে উয়েফা সুপার কাপে নিজেদের মাঠে ২-০ গোলের জয় এবং ডর্টমুন্ডের মাঠে ১-১ গোলে ড্র করে ৩-১ গোলে শিরোপা জিতে বার্সা। অবশ্য চ্যাম্পিয়নস লীগে কখনো মুখোমুখি হয়নি কোন দল।

উড়ন্ত ফর্মে থাকা ডর্টমুন্ডের সঙ্গে এবার কি ফল নিয়ে আসেন ভালভার্দে দেখা যাক।

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক