Connect with us

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ

গ্যালাতাসারেকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লীগে স্বস্তির জয় রিয়ালের

১৮ মিনিটে রিয়ালের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন টনি ক্রুস।

প্রকাশিত

তারিখ

গ্যালাতাসারেকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লীগে স্বস্তির জয় রিয়ালের
একমাত্র গোলের পর টনি ক্রুসের উল্লাস। ছবিঃ ইএসপিএন

২০১৯-২০ মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে প্রথম জয় পেল রিয়াল। গ্রুপ ‘এ’র তৃতীয় ম্যাচে গ্যালাতাসারের ঘরের মাঠে তাদেরকে ১-০ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। দলের পক্ষে একমাত্র গোলটি করেছেন টনি ক্রুস।

পিএসজির কাছে বিশাল ব্যবধানে হারের পর ক্লাব ব্রুজের সাথে ড্র। মায়োর্কার কাছে গত সপ্তাহে হেরে লা লিগার শীর্ষস্থান হারাতে হয়েছিল বার্সেলোনার কাছে। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে প্রথমবারের মত গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নেওয়ার অস্বস্তিকর রেকর্ডটা হাতছানি দিচ্ছিল রিয়াল মাদ্রিদের।

গ্যালাতাসারের বিপক্ষে তাই জয়ের বিকল্প ছিল না জিদানের। এ ম্যাচ হারলে যে চাকরিটাই খোয়া যেতে পারত জিদানের। মায়োর্কার বিপক্ষে ছিলেন না এডেন হ্যাজার্ড, টনি ক্রুস, ভালভার্দে, রাফায়েল ভারানরা। সবাই নেমেছিলেন এদিন। সাথে চমক হিসেবে ছিলেন রদ্রিগো।

অথচ রদ্রিগোর এ ম্যাচে খেলার কথাই ছিল না। রিয়াল মাদ্রিদের একাধিক খেলোয়াড় চোটে পড়েছেন, যে কারণে শেষমেশ আঠারো বছরের এ তরুণের ওপর ভরসা রাখলেন জিনেদিন জিদান। ম্যাচের একদম আগ দিয়ে তাঁকে জানানো হয়, মূল একাদশে আছেন। রিয়ালের হয়ে এই প্রথম একাদশে শুরু থেকে খেলা, জিদানকে হতাশ করেননি এ তরুণ ব্রাজিলিয়ান।

ম্যাচের প্রথম মিনিটেই গোলের সুযোগ পেয়েছিল রিয়াল, কিন্তু রদ্রিগোর ক্রস থেকে ডিবক্সে বল পেয়েও শট গোলে রাখতে পারেননি হ্যাজার্ড। প্রথম ২০ মিনিটেই দুই দল গোলের সুযোগ পেয়েছে গোটা ছয়েক, কাজে লাগাতে পারেনি একটিও। ডিফেন্স ছিল এলোমেলো, মাঝমাঠ ছিল অগোছালো।

এ মৌসুমে রিয়ালের ডিফেন্সের অবস্থা ভয়াবহ। আজকের ম্যাচেও এর ব্যতিক্রম ছিল না। রামোস আজকেও ছিলেন অফফর্মে। তবে দলকে এদিন বাঁচিয়েছেন গোলরক্ষক কর্তোয়া। ১০ থেকে ২০ মিনিটের মধ্যে অন্তত গ্যালাতাসারের অন্তত তিনটি নিশ্চিত গোল বাঁচিয়েছিলেন এ বেলজিয়ান গোলরক্ষক।

রিয়ালের মত দলের বিপক্ষে গোলের এত সুযোগ হাতছাড়া করার চড়া মাশুলও দিতে হয়েছে গ্যালাতাসারেকে। ১৮ মিনিটে রিয়ালের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন টনি ক্রুস।

গ্যালাতাসারের দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে ডিবক্সে ঢুকে পড়া হ্যাজার্ডের মাইনাস করিম বেনজেমা ধরতে না পারলেও ডানপায়ের প্লেসিং শটে গ্যালাতাসারে গোলরক্ষক ফার্নান্দো মুসলেরাকে পরাস্ত করেন ক্রুস।

প্রথমার্ধে গোলের সুযোগ তৈরি, পজেশন ধরে রাখার দিক দিয়ে এগিয়ে ছিল গ্যালাতাসারেই। বারবার ছন্নছাড়া রক্ষণের সুযোগে একের পর এক লং বলে সুযোগ তৈরি করেছে তারা।

দ্বিতীয়ার্ধেও একের পর এক সুযোগ হারানোয় কোন দলই আর গোল করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত টনি ক্রুসের একমাত্র গোলেই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের দুই নম্বরে উঠে এল রিয়াল। যথারীতি শীর্ষে অবস্থান করেছে পিএসজি।

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক