Connect with us

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল)

হোল্ডার-উইলিয়ামসনে ফাইনালের পথে হায়দ্রাবাদ

প্রকাশিত

তারিখ

হোল্ডার-উইলিয়ামসনের অনবদ্য ৬৫ রানের জুটিতে জয় পায় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। ছবিঃ হিন্দুস্তান টাইমস

হারলে বিদায়, জিতলে ফাইনালের পথে একধাপ এগিয়ে যাওয়া। এমন বাঁচা-মরার সমীকরণের ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুকে ছয় উইকেটে হারিয়েছে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।

টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে হায়দ্রাবাদের বোলারদের বুদ্ধিদ্বীপ্ত বোলিংয়ের সামনে রীতিমতো হিমশিম খায় আরসিবির ব্যাটসম্যানরা।

দলীয় মাত্র ৬২ রানেই সাজঘরে ফেরেন বিরাট কোহলি, দেবদূত পাডিকাল, অ্যারন ফিঞ্চ ও মঈন আলী।

এ চারজনের মধ্যে ইনিংসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩২ রান করেন ফিঞ্চ।

উইকেটের একপ্রান্তে দলকে খাদের কিনারা থেকে উদ্ধারের কাজ করেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। তুলে নেন আইপিএলে নিজের ৩৮তম ফিফটি।

শেষদিকে মোহাম্মদ সিরাজ ও নবদ্বীপ সাইনির ১৮ রানের জুটিতে ২০ ওভার শেষে স্কোরবোর্ডে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩১ রান সংগ্রহ করে ব্যাঙ্গালুরু।

হায়দ্রাবাদের পক্ষে জেসন হোল্ডার নেন ৩টি উইকেট। এছাড়া টি নটরাজন ২টি ও শাহবাজ নাদীম নেন ১টি করে উইকেট।

জবাবে সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বিপাকে পড়ে হায়দ্রাবাদও। দলীয় ৬৭ রানের মধ্যেই হারিয়ে বসে ৪টি উইকেট।

এরপর উইকেটে এসে দারুণ সব ক্রিকেটীয় শটে দৃষ্টিনন্দন ফিফটি তুলে নেন কেন উইলিয়ামসন। জেসন হোল্ডারের সাথে গড়েন অনবদ্য ৬৫ রানের জুটি।

শেষ চার বলে ৮ রানের প্রয়োজন হলে নবদ্বীপ সাইনিকে পরপর দুটি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ২ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখে জয় পায় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।

উইলিয়ামসন ৫০ ও হোল্ডার ২৪ রানে অপরাজিত থাকেন।

এ জয়ের ফলে ফাইনালের পথে আরেকধার এগিয়ে গেলো ডেভিড ওয়ার্নারের দল।

দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে দিল্লী ক্যাপিটালসকে হারাতে পারলেই ফাইনালে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সঙ্গী হবে তারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুঃ ১৩১/৭ (২০ ওভার) ফিঞ্চ ৩২, ডি ভিলিয়ার্স ৫৬, সিরাজ ১০*

হোল্ডার ২৫/৩, নটরাজন ৩৩/২, নাদীম ৩০/১

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদঃ ১৩২/৪ (১৯.৪ ওভার) মনীশ ২৪, উইলিয়ামসন ৫০*, হোল্ডার ২৪*

সিরাজ ২৮/২, জাম্পা ১২/১, চাহাল ২৪/১

ফলাফলঃ সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ ৬ উইকেটে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচঃ কেন উইলিয়ামসন (সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ)।

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক