Connect with us

ক্রিকেট

১০ বল হাতে রেখেই রংপুরকে হারালো চট্রগ্রাম

তিন ম্যাচে এটি চট্টগ্রামের দ্বিতীয় জয়। অপরদিকে বিপিএলের প্রথম দুটি ম্যাচেই হারের মুখ দেখল রংপুর।

প্রকাশিত

তারিখ

আজও অপরাজিত ৪৪ রানের ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়েছেন ইমরুল। ছবিঃ ডেইলি স্টার

বিপিএলে আজকের প্রথম ম্যাচে রংপুর রেঞ্জার্সকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। তিন ম্যাচে এটি চট্টগ্রামের দ্বিতীয় জয়। অপরদিকে বিপিএলের প্রথম দুটি ম্যাচেই হারের মুখ দেখল রংপুর।

সময়টা ভালোই যাচ্ছে জাতীয় দলে আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকা ইম্রুল কায়েসের। প্রথম ম্যাচের পর আজও দরকারে দলের হাল ধরেছেন।

আজও ৩৩ বলে ৪৪ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে এসেছেন।

শুরুতে ব্যাট করতে নেমে বিশ ওভার ব্যাট করে ৮ উইকেটে ১৫৭ রান তুলেছিল রংপুর। আজও দলকে মোহাম্মদ নাঈম একাই টানলেন।

৫৪ বলে ছয়টা চার ও তিন ছক্কার সাহায্যে খেললেন ৭৮ রানের এক অসাধারণ ইনিংস। আজও অন্য প্রান্তে সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মিছিল দেখলেন।

এক প্রান্ত আগলে রাখলেন প্রায় আঠারো ওভার পর্যন্ত। রুবেল হোসেনের বলে মেহেদি হাসান রানার হাতে ক্যাচ দিয়ে যখন ফিরছেন তখনও বল বাকি ১৩ টি।

সতীর্থরা আরেকটু সাহায্য-সহযোগিতা করলে এবারের বিপিএলের প্রথম সেঞ্চুরিটা হয়তো পেয়ে যেতেন।

নাঈম যে রান করলেন, রংপুরের বাকি নয় ব্যাটসম্যান মিলে তার চেয়ে মোটে এক রান বেশি করলেন। অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী একটু চেষ্টা করেছিলেন, ১২ বলে ২১ রানের ইনিংস খেলে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন।

টম অ্যাবেল ও লুইস গ্রেগরি দশের কোটা না পেরুতেই শেষ। শেষ দিকে তাসকিন ৪ বলে ১১ রান না করলে রংপুরের রান ১৫০ ও পেরোয় না।

আজ প্রথমবারের মতো মাঠে নেমেছেন মাহমুদউল্লাহ। ছিলেন অধিনায়ক ও। দেখিয়ে দিয়েছেন কিভাবে টি-টুয়েন্টিতে বোলিং করতে হয়।

৪ ওভারে দিয়েছেন মাত্র ১৭ রান, সাথে পেয়েছেন জহুরুল ইসলামের উইকেট। অন্য দিকে অবশ্য চট্রগ্রাম এর বোলাররা বেশ খরুচে ছিলেন।

৪ ওভারে ৩৫ রান দিয়ে দুটি উইকেট নিয়েছেন কেসরিক উইলিয়ামস। একটি করে উইকেট পেয়েছেন রুবেল হোসেন, জিম্বাবুয়ের লেগ স্পিনার রায়ান বার্ল ও মেহেদি হাসান রানা।

চট্রগ্রামকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন আভিষ্কা ফার্নান্দো ও ওয়ালটন জুটি। ৩ ছক্কা ও ২ চারে ২৩ বলে ৩৭ রান করে যখন আউট হন ফার্নান্দো, চট্রগ্রামের রান ৭.১ ওভারে ৬৮।

তৃতীয় উইকেটে ২৮ বলে ৪১ রানের ভালো জুটি গড়েও ম্যাচটা শেষ করে আসতে পারেননি চ্যাডউইক ওয়ালটন-ইমরুল কায়েস।

প্রথম ম্যাচে অপরাজিত ৪৯ রানের এক ইনিংস খেলেছিলেন ক্যারিবীয় এ ব্যাটসম্যান। আজও ৩ ছক্কা ও ৪ চারে সাজানো ৩৪ বলে ৫০ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত ১০ বল হাতে রেখে মাহমুদুল্লাহকে নিয়ে ৪৪ রানে অপরাজিত থেকে ম্যাচটি শেষ করেন ইমরুল কায়েস।

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক