Connect with us

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল)

স্টয়নিস-রাবাদা ম্যাজিকে সুপার ওভারে দিল্লীর জয়

প্রকাশিত

তারিখ

দিল্লীর জয়ের দুই নায়ক কাগিসো রাবাদা ও মার্কাস স্টয়নিস। ছবিঃ ডেইলি মেইল

আইপিএলের টানটান উত্তেজনাকর ২য় ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে সুপার ওভারে হারিয়েছে দিল্লী ক্যাপিটালস। টানা দুই বলে দুই উইকেট তুলে নিয়ে কাগিসো রাবাদা সেই ওভারে রান দেন মাত্র ২!

আগে টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের শুরুতেই মোহাম্মদ শামির বোলিং তোপে পড়ে ৪ ওভারে মাত্র ১৩ রানেই ৩ উইকেট হারায় দিল্লী ক্যাপিটালস।

এরপর রিশাব পান্ট ও শ্রেয়াস আইয়ার মিলে ৬০ বলে ৭৩ রানের পার্টনারশিপ গড়লে শুরুর ধাক্কা কিছুটা সামলে উঠে তারা।

যদিও দলীয় ৮৬ ও ৮৭ রানে টানা দুই বলে আইয়ার ও পান্ট আউট হয়ে গেলে আবারো ব্যাটিং ধ্বসের শিকার হয় দিল্লী।

এরপর মার্কাস স্টয়নিসের ২১ বলে ঝড়ো ৫৩ রানের ইনিংসে ভর করে ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রান সংগ্রহ করে দিল্লী।

পাঞ্জাবের পক্ষে শামি ৩টি ও কটরেল নেন ২টি করে উইকেট।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দিল্লীর ন্যায় পাঞ্জাবও ব্যাটিং ধ্বসের সম্মুখীন হয়।

৪.৩ ওভারে দলীয় ৩০ রানে লোকেশ রাহুলের উইকেট হারানোর পর ৬.৩ ওভারে ৩৫ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে বসে পাঞ্জাব!

একপ্রান্তে তবু লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। দেখেশুনে খেললেও সময়ের সাথে সাথে চালিয়েছেন ব্যাট।

কৃষ্ণাপ্পা গৌতমের সাথে ৩৩ বলে ৪৬ রানের পার্টনারশিপ গড়ার পর ক্রিস জর্ডানের সাথে গড়েন মাত্র ২৬ বলে ৫৬ রানের পার্টনারশিপ!

শেষ দুই ওভারে ২৫ রানের দরকার হলে রাবাদার করা ১৯তম ওভারে আসে ১২ রান!

শেষের ওভারে তাই ১৩ রান তুলাটা খুবই সম্ভব মনে হচ্ছিলো। কিন্তু টি-২০ ক্রিকেট যে একাই ঘুরিয়ে দেওয়া যায় তার প্রমাণ মার্কাস স্টয়নিস!

দলের বিপদে ব্যাট হাতে ঝড়ো ফিফটি করার পর বল হাতেও রাখেন মুখ্য ভূমিকা।

আগের ২ ওভারে দিয়েছিলেন ১৭ রান। অথচ শেষ ওভারে তার হাতেই বল তুলে দেন দিল্লী ক্যাপ্টেন শ্রেয়াস আইয়ার!

প্রথম বলে ছক্কা, দ্বিতীয় বলে ২ রান ও তৃতীয় বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে তিন বলেই স্কোর লেভেল করেন আগারওয়াল।

অথচ স্টয়নিসের পরের তিন বলে একটি রানও আর নিতে পারেনি পাঞ্জাব! এ যেনো ব্যাটে-বলে স্টয়নিসময় দিন।

চতুর্থ বলে কোনো রান না আসলেও পঞ্চম বলে হেটমেয়ারের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন ৬০ বলে ৮৯ রানের আইপিএল ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ রান করা মায়াঙ্ক আগারওয়াল।

শেষ বলে কোনো রান না নিয়ে ক্যাচ আউট হোন ক্রিস জর্ডানও! ফলে ম্যাচ টাই হয়ে তা গড়ায় সুপার ওভারে।

পাঞ্জাবের পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন কাগিসো রাবাদা, মার্কাস স্টয়নিস ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

সুপার ওভারের নায়ক অবশ্য কাগিসো রাবাদা। প্রথম বলে দুই রান দিলেও পরের দুই বলে তুলে নেন দুই উইকেট!

আইপিএল ইতিহাসে সুপার ওভারে এটিই সর্বনিম্ন স্কোর!

মাত্র তিন রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে প্রথম দুই বলেই ম্যাচ জিতে নেয় দিল্লী ক্যাপিটালস।

আইপিলে এখন পর্যন্ত দুটি সুপার ওভার জিতেছে দিল্লী। কাকতালীয় ভাবে দুটিতেই বল করে জিতিয়েছেন কাগিসো রাবাদা!

ব্যাটে-বলে ম্যাচ জেতানো পারফরম্যান্সের ফলস্বরূপ ম্যাচসেরার পুরষ্কার জেতেন অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মার্কাস স্টয়নিস।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

দিল্লী ক্যাপিটালসঃ ১৫৭/৮ (২০ ওভারে), শ্রেয়াস ৩৯, পান্ট ৩১, স্টয়নিস ৫৩

শামি ১৫/৩, কটরেল ২৪/২, রবি ২২/১

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবঃ ১৫৭/৮ (২০ ওভারে), রাহুল ২১, আগারওয়াল ৮৯, গৌতম ২০

অশ্বিন ২/২, রাবাদা ২৮/২, স্টয়নিস ২৯/২, মোহিত ৪৫/১

ফলাফলঃ ম্যাচ ড্র, দিল্লী ক্যাপিটালস সুপার ওভারে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচঃ মার্কাস স্টয়নিস (দিল্লী ক্যাপিটালস)

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক