Connect with us

আন্তর্জাতিক

সিপিএলকে রিয়াদ-তামিমদের না!

প্রকাশিত

তারিখ

ইউনিভার্স বসের সাথে সেলফি তে রিয়াদ।ছবিঃ সিপিএল ভল্ট

আগামী ১৮ আগস্ট থেকে ত্রিনিদাদে শুরু হচ্ছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগ সিপিএলের এবারের আসর।

সেই টুর্নামেন্টে খেলতে মোটা অংকের টাকার প্রস্তাব পেয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও তামিম ইকবাল।

কিন্তু সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন তারা! বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম আকর্ষণ হচ্ছে ফ্র‍্যাঞ্চাইজ ভিত্তিক টি-২০ টুর্নামেন্টগুলো।

সেখানে বিশ্বের নামি-দামি তারকাদের সাথে ড্রেসিং রুম শেয়ার করা এবং খেলতে পারাটা ক্রিকেটারদের জন্য যেমন দারুণ অভিজ্ঞতা।

একই সাথে অর্থনৈতিক একটা বিশাল সাপোর্টও বটে।

তাই এইসব টুর্নামেন্ট খেলার সুযোগ পাওয়ার জন্য মুখিয়ে থাকেন ক্রিকেটাররা। কিন্তু এবার তার ব্যাতিক্রম দেখা যাচ্ছে।

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় দীর্ঘদিন বন্ধ ছিলো মাঠের ক্রিকেট। আস্তে আস্তে ক্রিকেটের মাঠে ফেরা শুরু হলেও এখনো ঝুঁকিমুক্ত নয় পরিস্থিতি।

আর তাই বিশাল অংকের টাকাও টানছেনা ক্রিকেটারদের।

পরিবারের অসম্মতি, দেশের আশংকাজনক পরিস্থিতি, যাতায়াত সমস্যা ইত্যাদি বিবেচনায় সিপিএল টি-২০ খেলার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন টাইগারদের টি-২০ দলপতি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

সেইন্ট কিটস ও সেইন্ট লুসিয়া দুটি দল থেকেই প্রস্তাব পেয়েছিলেন অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার। যদিও পরিবারের সম্মতি এবং অন্যান্য বিষয় বিবেচনায় সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি।

মাহমুদউল্লাহ বলেন,“আমরা জানি বর্তমানে পুরো বিশ্বে করোনার কারণে পরিস্থিতি খুব একটা ভালো নয়। আমি আমার পরিবারের সাথে সিপিএলের প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা করেছি। এবং তারা বর্তমান পরিস্থিতির কারণে সম্মতি দেননি। আমি নিজেও চিন্তা করেছি পরিবারকে চিন্তায় ফেলে যাওয়া ঠিক হবেনা। তাছাড়া ভ্রমণেরও একটা বিষয় আছে এখানে।”

এদিকে ৯০ হাজার ডলারের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালও!

মাহমুদউল্লাহর মতো তিনিও পরিবার, যাতায়াত ইত্যাদির সাথে ঢাকা প্রিমিয়ার লীগকে দেয়া প্রতিশ্রুতিও বিবেচনায় রেখেছেন।

ঢাকা ট্রিবিউনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তামিম জানান, “মূলত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের প্রতি কমিটমেন্টের কারণে সিপিএল খেলার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছি। যদিও বর্তমানে টুর্নামেন্টটি স্থগিত রয়েছে। তবে পুনরায় মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় আছি। তাছাড়া যাতায়াতের একটা ব্যাপার আছে এখানে। করোনার কারণে ভ্রমণেও নিষেধাজ্ঞাও আছে।”

রিয়াদ-তামিম ছাড়াও সিপিএল খেলার প্রস্তাব পেয়েছিলেন মোস্তাফিজুর রহমানও। তিনিও সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন।

সাকিব আল আসান ছাড়া বাংলাদেশি খুব বেশি ক্রিকেটারের ফ্র‍্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে খেলার সুযোগ হয়না। কিন্তু সুযোগ পেয়েও প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়ার বিষয়টি পরিষ্কার বুঝিয়ে দেয়, জীবনের চাইতে দামী আর কিছুই নেই।

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক