Connect with us

অস্ট্রেলিয়া

রোমাঞ্চকর ম্যাচে ইংল্যান্ডের জয়!

প্রকাশিত

তারিখ

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ২ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। ছবিঃ ক্রিকবাজ

গতকাল ৪ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া তিন ম্যাচ টি-২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচে ২ রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পেয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

উদ্বোধনী জুটিতে ৯৮ রান আসলেও শেষ পর্যন্ত হার মানে অ্যারন ফিঞ্চের দল।

সাউদাম্পটনে টসে জিতে আগে স্বাগতিকদের ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানান অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ।

ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৪৩ রানে আউট হোন ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারস্টো।

তবে অন্যপ্রান্তে জস বাটলারের স্বভাবসুলভ মারকুটে ব্যাটিংয়ে উড়ন্ত সূচনা পায় ইংল্যান্ড।

অ্যাশটন অ্যাগারের বলে প্যাট কামিন্সকে ক্যাচ দেবার আগে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ২৯ বলে ৪৪ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।

ঠিক ১২ বল পর দলীয় ৭৪ রানে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন পাকিস্তানের বিপক্ষে আলোর দ্যুতি ছড়ানো টম ব্যান্টন।

এরপর দুই অঙ্কের ঘরে পৌছার আগেই একে একে আউট হন এউইন মরগান, মঈন আলী ও টম কারেন। তবে অপরপ্রান্তে অজি বোলারদের উপর ছুরি ঘুরান ডেভিড মালান।

১৪ তম টি-২০ খেলতে নেমে তুলে নেন ক্যারিয়ারের ৭ম ফিফটি!

কেন রিচার্ডসনের বলে আউট হবার আগে ৪৩ বলে ৬৬ রানের কার্যকরী ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি।

এরপর শেষ দিকে ৮ বলে ১৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন ক্রিস জর্ডান। ২০ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬২ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড।

অজি বোলারদের মধ্যে অ্যাশটন অ্যাগার, কেন রিচার্ডসন ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ভাগাভাগি করেন দুটি করে উইকেট। এছাড়া প্যাট কামিন্স নেন ১ টি উইকেট।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে উদ্বোধনী জুটিতে তুলেন ১১ ওভারে ৯৮ রান

৩২ বলে ৪৬ রান করে থামলেও টি-টোয়েন্টিতে দুই হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ।

তার বিদায়ের পর ক্যারিয়ারের ১৮ তম ফিফটি তুলে নেন ডেভিড ওয়ার্নার।

তবে দলীয় ১২৪ থেকে ১৩৩ রানের মধ্যে মাত্র ৯ রানের ব্যবধানে স্টিভ স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যালেক্স ক্যারির উইকেট হারায় সফরকারীরা।

সর্বোচ্চ ৪৭ বলে ৫৮ রানের ইনিংস খেলেন ডেভিড ওয়ার্নার।

শেষ দুই ওভারে অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ছিলো ১৯ রান। কিন্তু ১৯ তম ওভারে ক্রিস জর্ডান দেন মাত্র চার রান! শেষ বলে অ্যাশটন অ্যাগারকে করেন রান আউট।

শেষ ওভারে ১৫ রান তুলতে গিয়ে টম কারেনের প্রথম বলে কোনো রান নিতে পারেননি মার্কাস স্টয়নিস। তবে পরের বলেই এক্সট্রা কাভারের উপর দিয়ে হাঁকিয়ে দেন বিশাল ছক্কা।

তবে শেষ তিন বলে ৯ রানের প্রয়োজন হলেও আর কোনো বাউন্ডারি না হাঁকিয়ে আদায় করতে পারেন মাত্র ৬ রান। ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬০ রানেই থেমে যায় অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস।

২ রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পায় স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

এ নিয়ে সমান তৃতীয় বারের মতো টি-টোয়েন্টিতে ২ রানে জিতলো ইংল্যান্ড ও ২ রানে হারলো অস্ট্রেলিয়া!

দলের পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন জফরা আর্চার ও আদিল রশিদ। একটি উইকেট নেন মার্ক উড।

৪৩ বলে ৬৬ রান করা ডেভিড মালানকে ম্যাচসেরার পুরষ্কার দেয়া হয়।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ইংল্যান্ড ১৬২/৭ (২০), বাটলার ৪৪, মালান ৬৬, জর্ডান ১৪*, রশিদ ১*;

রিচার্ডসন ১৩/২, ম্যাক্সওয়েল ১৪/২,
অ্যাগার ৩২/২, কামিন্স ২৪/১

অস্ট্রেলিয়া ১৬০/৬ (২০), ওয়ার্নার ৫৮, ফিঞ্চ ৪৬, স্মিথ ১৮, স্টয়নিস ২৩*, কামিন্স ০*;
আদিল ২৯/২, আর্চার ৩৩/২, উড ৩১/১

ফলাফলঃ ইংল্যান্ড ২ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচঃ ডেভিড মালান (ইংল্যান্ড)।

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক