Connect with us

ক্রিকেট

মায়ের জন্য ক্ষমা পাচ্ছেন শাহাদাত!

প্রকাশিত

তারিখ

শাস্তি মওকুফের ব্যপারে এখন পর্যন্ত ইতিবাচক সাড়া দিচ্ছে বিসিবি। ছবিঃ যুগান্তর

সাম্প্রতিক সময়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রিকেটার শাহাদাত হোসেন রাজিবের একটি ভিডিওবার্তা সকলের মনে দাগ কেটেছে।

এবার নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেতে যাচ্ছেন তিনি!

পেস বোলারদের মধ্যে টেস্ট ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত দেশের অন্যতম শীর্ষ উইকেট সংগ্রাহকের নাম জুড়েই আছে বিতর্ক আর বিতর্ক।

গৃহকর্মী নির্যাতনের পর সস্ত্রীক জেল খেটেও উদ্ধতস্বভাব পরিবর্তন করতে পারেননি শাহাদাত।

ফলস্বরূপ ২০১৯ সালে ঘরোয়া ক্রিকেটের একটি ম্যাচ চলাকালীন সময়ে সতীর্থ আরাফাত সানি জুনিয়রের সাথে হাতাহাতির ঘটনায় লিপ্ত হন।

এরপর শৃঙ্খলাজনিত কারণে শাহাদাত হোসেনকে সবধরনের ক্রিকেট থেকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি। সেই শাস্তি এখনো চলমান রয়েছে।

তবে কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় কান্নাজড়িত একটি ভিডিওবার্তায় তিনি জানান, তার মায়ের ক্যান্সার হয়েছে।

ক্রিকেটই যার রুটিরুজি সেই ক্রিকেট থেকে দূরে থেকে মায়ের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করতে হিমশিম খাচ্ছেন রোজ।

ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের চিকিৎসার খরচ বহনের জন্য ক্রিকেটে ফেরাটা জরুরী তার।

তাই ক্রিকেট বোর্ডের কাছে শাস্তি মওকুফের জন্য মানবিক আবেদন জানিয়ে চিঠি দেন শাহাদাত।

পাশাপাশি এইসব ঘটনার পুনরাবৃত্তি আর হবেনা বলেও প্রতিশ্রুতি দেন দীর্ঘদিন জাতীয় দলে সার্ভিস দেওয়া এই পেসার।

সাথে এ-ও বলেন যে, আর কখনো এমনটা করলে মাফও চাইতে আসবেননা তিনি। এটাই শেষ সুযোগ হিসেবে তার আবেদন।

বোর্ড কর্তা থেকে শুরু করে সমর্থকদের মনেও শাহাদাতের উপর ক্ষোভ ছিলো সকলের।

তবে কেউ যখন ভুল বুঝতে পেরে প্রকাশ্যে ক্ষমা চায় এবং আবেদনটা যখন মাকে নিয়ে; তখন আপ্লুত হয়ে ক্ষমা করাই মানবিকতার কাজ।

তার এই আবেদনে সাড়া দিচ্ছে বিসিবি।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন,

‘এনসিএল চলাকালীন সময়ে রাজিব শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছিল। এরপর ডিসিপ্লিন বোর্ড তাকে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে। কিছুদিন আগে নিষেধাজ্ঞা মওকুফের জন্য ব্যক্তিগতভাবে ফোন করেছে, চিঠিও দিয়েছে; গণমাধ্যমেও দেখেছি।’

শাস্তি মওকুফের ব্যপারে ইতিবাচক সারা দিয়েছে ডিসিপ্লিনারি কমিটি। এমনটা জানিয়ে আকরাম আরো যোগ করেন,

‘যেহেতু ও পারিবারিকভাবে সমস্যায় পড়েছে, ওর আম্মার ক্যান্সার হয়েছে আর ও ক্রিকেটে ফিরতে পারছে না… আমরা কয়েকজন পরিচালক আলোচনা করেছি, ডিসিপ্লিন কমিটির চেয়ারম্যানের সাথেও। ওরা ইতিবাচক। আশা করছি ইতিবাচক কিছু আসবে।’

ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের জন্য ক্রিকেটে ফেরার মানবিক আবেদনে ইতিবাচক ইশারাই দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও।

‘বোর্ড সভাপতিকে জানিয়েছি, তিনিও শাস্তি মওকুফের ব্যাপারে ইতিবাচক আছেন। ও যেনো এবারের এনসিএলে খেলতে পারে সেই আশা করছি।’

সবকিছু ঠিক থাকলে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসার পর এবারের এনসিএলেই মাঠে নামতে পারবেন শাহাদাত

শয্যাশায়ী সংকটাপন্ন মায়ের মুখে একটু হাসি ফোটাবেন, সাথে নিজেকে শুধরে নতুন করে গন্তব্যের দিকে ছুটবেন সেই প্রত্যাশা ক্রিকেটপ্রেমীদের। ভালো থাকুক মা।

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক