Connect with us

ক্রিকেট

বাংলাদেশ বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে থাকছেন না ধোনি

ভারতের কালজয়ী অধিনায়ক উইকেটরক্ষক মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসরের গুঞ্জনে সরব হয়েছে মিডিয়াগুলি বহু বহুবার।

প্রকাশিত

তারিখ

বাংলাদেশ বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে থাকছেন না ধোনি
বাংলাদেশের বিপক্ষে হোম টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলছেন না ধোনি। ছবিঃ ইকনমিক টাইম্‌স

ভারতের কালজয়ী অধিনায়ক উইকেটরক্ষক মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসরের গুঞ্জনে সরব হয়েছে মিডিয়াগুলি বহু বহুবার।

২০১৯ আইসিসি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের হয়ে ধোনি সর্বশেষ ম্যাচটি খেলেছিলেন যেখানে ভারত ১৮ রানে হেরেছিলো।

৩৮ বছর বয়সী এই উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান বিশ্বকাপ শেষে অবসরের ঘোষনা না দিয়েই হুট করে ভারতীয় আর্মির হয়ে কাশ্মিরিতে কিছু দিন কাটানোর জন্য বিসিসিআই আবেদন করেন।

তবে কাশ্মীর থেকে ফিরেও দলে যোগ না দেয়াকে কেন্দ্র করে তার অবসরের জল্পনা, কল্পনার ডালপালা ছড়িয়েছে বহুগুন।গত মাসে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ যাননি। এমনকি দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চলতে থাকা তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজেও নেই তিনি।

বরং মুম্বাই মিররের এক প্রতিবেদন অনুসারে জানা গেছে, ক্রিকেট থেকে তার বিরতির সময়টা বাড়িয়ে এখন নভেম্বরে যেয়ে ঠেকেছে।

সুতারাং বিজয় হাজারে ট্রফি এবং বাংলাদেশের বিপক্ষে হোম টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলছেন না তিনি। এর অর্থ হলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ যখন ডিসেম্বরে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ভারত সফরে আসবে তখন ভারতীয় দলে প্রত্যাবর্তন করতে পারেন তিনি।

ভারতীয় ক্রিকেটে ধোনির অবদান কথা স্মরণ রেখেই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড তার অবসর ঘোষনার সিদ্ধান্তের ভার তার ওপরেই বর্তিয়েছেন।

অধিনায়ক হিসাবে ধোনি কতটা প্রখর সেটা খুব ভালোভাবেই জানেন ভারত সহ পুরো ক্রিকেট বিশ্ব।এই ধোনির নেতৃত্বেই ২৮ বছর পর ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভারত পেয়েছিলো শিরোপার স্বাদ।

ইন্ডিয়া টু-ডে কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য দলটির ভূমিকা এখন থেকেই ভূমিকা গ্রহন করা উচিত বলে মনে করে বলেন

“ধোনির মনে কী আছে তা কেউ জানে না। ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ে তাঁর ভবিষ্যত কী তা তিনিই কেবল স্পষ্ট করতে পারেন। তবে আমার মনে হয় তাঁর বয়স এখন ৩৮, ভারতের এখনই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। কারণ পরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটি আসার মধ্যেই তিনি ৩৯ এ পদার্পন করবেন।”

“প্রত্যেকেরই নিজস্ব জীবনধারা রয়েছে এবং আমি ধোনির প্রতি শ্রদ্ধার সাথে বিশ্বাস করি এবং লক্ষ লক্ষ মানুষের মত আমিও তার একজন একনিষ্ঠ ভক্ত; আমি কেবল বিশ্বাস করি যে, তার নিজেরই প্রস্হানের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহন করা উচিত।” গাভাস্কার তার বিবৃতিতে এসব যোগ করেন।

সংবাদ সংস্থা আইএনএস-এর খবর অনুযায়ী ভারতীয় বোর্ড থেকেই আপাতত ধোনিকে অবসর নিতে নিষেধ করা হয়েছে। বিসিসিআই যে ঋষভ পন্থকেই আগামী দিনের উইকেটরক্ষক হিসেবে দেখছে, এটা নতুন কোনো খবর নয়।

তবে ঋষভ পন্হ পুরোপুরি তৈরি না হওয়া পর্যন্ত ধোনির অবসরের ঘোষনা দিতে বা ক্রিকেট থেকে ধোনিকে বিদায় জানাতে নারাজ বিসিসআই কতৃপক্ষ। কারন সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ঋষভ পান্হ যদি কোনো কারনে চোট পান তবে উইকেটের পেছনে গ্লাভস হাতে দেখা মিলতে পারে যেনো ধোনির এজন্যই এ ব্যবস্হা।

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক