Connect with us

ক্রিকেট

‘বাংলাদেশে সে রকম টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড় নেই!’

প্রকাশিত

তারিখ

বাংলাদেশে খুব ভালো মানের টি-২০ ক্রিকেটার নেই বলে মনে করেন মোহাম্মদ আশরাফুল। ছবিঃ বিসিবি

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ আইপিএলে বাংলাদেশী ক্রিকেটাররা বরাবরই উপেক্ষিত থাকেন। প্রত্যেকবার আইপিএলের নিলাম নিয়ে এদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে অনেক উৎসাহ থাকলেও বারবার হতাশ হতে হয়। এক সাকিব আল হাসান ছাড়া পারফরম্যান্স দিয়ে নিয়মিত আইপিএল খেলা খেলোয়াড়ই যে নেই আর কেউ!

সর্বশেষ বাংলাদেশী হিসেবে মুস্তাফিজুর রহমান আইপিএলে প্রতিনিধিত্ব করলেও শুরুর চৌকস পারফরম্যান্স পরে আর ধরে রাখতে পারেন নি। শেষের সময়টা তাই বেঞ্চে বসেই কাটাতে হয়েছে তাকে।

এবার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলার প্রস্তাব পেলেও বিসিবির অনাপত্তিপত্র না পাওয়ায় খেলা হচ্ছেনা দ্য ফিজের।

অন্যদিকে নিষেধাজ্ঞায় থাকায় এবারের আসরে খেলছেন না আইপিএলের নিয়মিত মুখ সাকিব আল হাসানও।

এর আগে ২০০৯ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলার সুযোগ হয়েছিলো সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলের।

আব্দুর রাজ্জাক, মাশরাফি , তামিম ইকবালরাও পেয়েছিলেন ডাক। শুধুমাত্র তামিম ছাড়া বাকি সবাই একটি করে হলেও ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন।

এই যে উপেক্ষিত থাকা, এর মূলে কারণটা কি আসলে?

ভারতীয় পত্রিকা আনন্দবাজারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল বলেন,‘সাকিব একটা সময়ে আইপিএল মাতিয়েছে। এবার ও নেই। খুব ভাল ভাবে বিশ্লেষণ করলে দেখবেন, বাংলাদেশে সে রকম টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড়ও নেই।’এ প্রসঙ্গে তিনি আর ও বলেন, ‘বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের ক্রিকেট কম খেলে। তাছাড়া অল্প কয়েকটা টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে জায়গা পাওয়া যায় না।’

বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের জন্য দল পাওয়া কঠিন হওয়ার পেছনে যুক্তি দেখিয়েছেন বিদেশী কোচদের পছন্দের ক্রিকেটারদের দলে ভেড়ানো,

‘আইপিএল-এর মতো টুর্নামেন্টে জায়গা পেতে হলে অনেকগুলো শর্ত পূরণ করতে হয়। প্রথমত খুব ভালো স্ট্রাইক রেট হতে হয়। তামিম ইকবালও দুর্দান্ত ক্রিকেটার। কিন্তু অধিকাংশ ফ্র্যাঞ্চাইজির কোচই বিদেশি। তাঁরা আবার তাঁদের চেনা, পছন্দের ক্রিকেটারকেই দলে পেতে চান। ফলে আমাদের খেলোয়াড়দের দল পাওয়া কঠিন হয়ে যাচ্ছে।’

পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক