Connect with us

আন্তর্জাতিক

এখনই শেষ দেখছেননা অ্যান্ডারসন, লক্ষ্য ৭০০ উইকেট!

প্রকাশিত

তারিখ

কঠোর পরিশ্রম ও আত্মবিশ্বাস নিয়ে ৭০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁতে চান জিমি।ছবিঃ ইসিবি
গতকাল ২৫ আগস্ট সাউদাম্পটনে পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ টেস্টের শেষ দিনে আজহার আলীকে আউট করে বিশ্বের চতুর্থ ক্রিকেটার ও প্রথম পেসার হিসেবে টেস্টে ৬০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেন ইংলিশ পেসার জিমি অ্যান্ডারসন।
এবার তার লক্ষ্য ৭০০ উইকেট!
টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীদের তালিকায় তার নিকট দূরত্বে থাকা অনিল কুম্বলেকে ছাড়িয়ে যেতে আর মাত্র ২০ উইকেটের প্রয়োজন।
৩৮ বয়সী এই পেসারের লক্ষ্য অবশ্য তারচেয়েও বেশি। তিনি বিশ্বাস করেন খেলা ও ফিটনেস নিয়ে তার যে কঠোর পরিশ্রম ও আত্মবিশ্বাস, তাতে ৭০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করাও অসম্ভব কিছু নয়।
ক্যারিয়ার নিয়ে ইএসপিএনকে নিজের ভাবনার কথা জানিয়ে এই কিংবদন্তি পেসার বলেন,‘এ নিয়ে জো রুটের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সে বলেছে আমাকে অস্ট্রেলিয়ায় পেতে চায় (পরবর্তী অ্যাশেজে)।আমার না পারার কোন কারণ দেখছিনা। আমি ফিটনেস নিয়ে সব সময়ের মতো কঠোর পরিশ্রম করছি। আমি খেলা নিয়েও বেশ ভালো পরিশ্রম করছি। হয়তো এই গ্রীষ্মে আমি যেভাবে বল করার কথা সেটা পারিনি। কিন্তু এই টেস্টে ছন্দেই ছিলাম।’
ক্যারিয়ারের শেষ প্রান্তে এসেও কঠোর পরিশ্রমী ও আত্মবিশ্বাসী অ্যান্ডারসন নিজে বিশ্বাস করেন যে ইংল্যান্ডের হয়ে শেষ ম্যাচ খেলে ফেলেননি তিনি। তার পক্ষে ৭০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করাও সম্ভব!
‘আমি অনুভব করি দলটিকে আরও কিছু দেওয়া সম্ভব। যতক্ষণ আমি মনে করবো সম্ভব ততক্ষণ আমি চালিয়ে যাবো। আমি মনে করিনা ইংল্যান্ডের হয়ে আমি শেষ টেস্ট খেলেছি। আমি কি ৭০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁতে পারবো? কেন নয়?’
টেস্টে ৮০০ উইকেট নিয়ে সবার ধরা ছোয়ার বাইরে শীর্ষে অবস্থান করছেন শ্রীলঙ্কান গ্রেট মুত্তিয়া মুরালিধরন।
৭০৮ উইকেট নিয়ে দুইয়ে আছেন অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন। ৬১৯ উইকেট নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে ভারতীয় লেগ স্পিনার অনিল কুম্বলে।
৭০০ উইকেট যদি অ্যান্ডারসন নিতেই পারেন, তবে আরো ৯ উইকেট কেনো পেতে চাইবেন না? এর দ্বারা যে শেন ওয়ার্নকে ছাড়িয়ে টেস্টে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী বনে যাবেন তিনি!
বেশ স্বপ্নের মতো হচ্ছে যদিও। তবু ৬০০ উইকেট নিতে পারা এমন বোলারকে নিয়ে সেই স্বপ্ন দেখাটা বরং খুবই স্বাভাবিক।
অ্যান্ডারসনের সেই বিরল কীর্তি গড়া সম্ভব হবে কি না তা সময়ই বলে দেবে। তবে এখন তিনি যে অবস্থানে দাড়িয়ে আছেন, সেখানেও তো নেই আর কোনো ফাস্ট বোলার!
পুরোটা পড়ুন
কমেন্ট করুন/দেখুন

ট্রেন্ডিং টপিক